শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

Shikkha Bichitra
মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০
প্রথম পাতা » কলেজ | শিক্ষা | শিক্ষাঙ্গন » উচ্চ মাধ্যমিকেও থাকছে না বিভাগ!
প্রথম পাতা » কলেজ | শিক্ষা | শিক্ষাঙ্গন » উচ্চ মাধ্যমিকেও থাকছে না বিভাগ!
৬৪৮৭৫ বার পঠিত
মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

উচ্চ মাধ্যমিকেও থাকছে না বিভাগ!

উচ্চ মাধ্যমিকেও থাকছে না বিভাগ!দেশের শিক্ষাব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তনের জন্য কাজ শুরু করেছে সরকার। সব স্তরে ২০২২ সাল থেকে নতুন আঙ্গিকে শুরু হবে পড়াশোনা। এ সিদ্ধান্তের আলোকে প্রাথমিক, মাধ্যমিক পর্যায়ে কী পরিবর্তন আসবে সে বিষয়ে ইতিমধ্যে জানানো হয়েছে। মাধ্যমিকে কোনো বিভাগ থাকছে না। এবার উচ্চ মাধ্যমিকেও মানবিক, বিজ্ঞান ও বাণিজ্য বিভাগ থাকছে না বলে জানানো হয়েছে।

এর মানে হলো, একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণিতে বিভাগ বিভাজন ছাড়াই পড়বেন শিক্ষার্থীরা। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখায় এ প্রস্তাব রাখা হয়েছে। এটি বাস্তবায়িত হলে উচ্চশিক্ষায় প্রবেশে পছন্দের বিষয় ভর্তিচ্ছুদের জন্য উন্মুক্ত। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আরও সহজ হবে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

রূপরেখায় উল্লেখ করা পাঁচটি ধাপে রয়েছে প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক এবং উচ্চশিক্ষা। এছাড়া প্রস্তাবিত কারিকুলাম অনুযায়ী মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরা সব ধরনের বিষয় নিয়ে পড়বে দশম শ্রেণি পর্যন্ত। এ স্তরের শিক্ষাক্রমে বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগ থাকবে না।

রূপরেখায় একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে আবশ্যিক বিষয়ের জন্য বরাদ্দ থাকবে মোট শিখন সময়ের ২৫ শতাংশ। আর নৈর্বাচনিক তিনটি বিষয়ের জন্য মোট শিখন সময়ের ৭৫ শতাংশ সময় বরাদ্দ থাকবে। পাশাপাশি একটি ঐচ্ছিক প্রায়োগিক বিষয়ের জন্য সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় আলাদা সময় বরাদ্দ করবে।

এ বিষয়ে এনসিটিবির সদস্য (শিক্ষাক্রম) প্রফেসর মো. মশিউজ্জামান গণমাধ্যমকে বলেছেন, একাদশ- দ্বাদশ শ্রেণিতে বিজ্ঞান, বাণিজ্য ও মানবিক বিভাগের বিভাজন থাকবে না। তবে শিক্ষার্থীরা বিষয়গুলো পড়তে পারবে। আগের মতো গ্রুপ চিহ্নিত করা হবে না। শিক্ষার্থীরা আবশ্যিক তিনটি বিষয় নিয়ে পরে নৈর্বাচনিক ও ঐচ্ছিক কোনো বিষয় নির্বাচন করতে পারবে।

এতে বিজ্ঞান, ব্যবসা কিংবা মানবিক বিভাগের যে বিষয় পড়বেন, সে পথ উন্মুক্ত থাকবে জানিয়ে তিনি বলেন, উচ্চশিক্ষায় প্রবেশের লক্ষ্যেও বিষয় নির্বাচন করতে পারবেন শিক্ষার্থী। উচ্চ মাধ্যমিক ও এর পরবর্তী সময়ে বিশেষায়িত ক্ষেত্রে জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা পেশাগত প্রস্তুতি গ্রহণ করবে বলেও জানান তিনি।



আর্কাইভ