শিরোনাম:
ঢাকা, রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

Shikkha Bichitra
মঙ্গলবার, ১ অক্টোবর ২০১৯
প্রথম পাতা » বিদেশে উচ্চশিক্ষা | বৃত্তি » আরটিপি স্কলারশিপ ২০২০-২০২১ এর আবেদন প্রক্রিয়া শুরু
প্রথম পাতা » বিদেশে উচ্চশিক্ষা | বৃত্তি » আরটিপি স্কলারশিপ ২০২০-২০২১ এর আবেদন প্রক্রিয়া শুরু
১৩১৯১৪ বার পঠিত
মঙ্গলবার, ১ অক্টোবর ২০১৯
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

আরটিপি স্কলারশিপ ২০২০-২০২১ এর আবেদন প্রক্রিয়া শুরু

আরটিপি স্কলারশিপঅস্ট্রেলিয়াতে পড়তে যাওয়ার স্বপ্ন যাদের তারা সকলেই আরটিপি স্কলারশিপ সম্পর্কে অবগত। এর সম্পূর্ণ অর্থ রিসার্চ ট্রেইনিং প্রোগ্রাম স্কলারশিপ। অস্ট্রেলিয়ার সরকার প্রতি বছর বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীদের এই স্কলারশিপ দিয়ে থাকে, যার মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার কিছু নির্ধারিত বিশ্ববিদ্যালয়ে এই স্কলারশিপটি মূলত পোস্টগ্র্যাজুয়েট রিসার্চ প্রোগ্রাম (গবেষণা-ভিত্তিক মাস্টার্স এবং ডক্টরাল) এর জন্য প্রদান করা হয়।

আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় যোগ্যতা

১. আপনি যদি মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জনের অন্য আবেদন করতে চান, তাহলে আপনাকে স্নাতক ডিগ্রি প্রাপ্ত হতে হবে। আর যদি ডক্টরাল অর্জনের অন্য আবেদন করতে চান, তাহলে আপনাকে মাস্টার্স ডিগ্রি সম্পন্ন করতে হবে।

২. আইইএলটিএস(IELTS) বা টোফেল(TOFEL) কোর্স সম্পন্ন করতে হবে।

৩. বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে বর্ণিত জিএটি, জিআরই, জিএমএটি বা অন্য কোনও প্রয়োজনীয়তা কোর্স থাকলে, তা সম্পন্ন করতে হবে।

৪. আইইএলটিএসে (IELTS) ন্যূনতম স্কোর ৬.৫ হতে হবে। কোনো ব্যান্ডেই ৬ এর নিচে স্কোর গ্রহণযোগ্য হবে না।

আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসমূহ

১. শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদসহ ট্রান্সকিপ্টের ফটোকপি

২. রিসার্চ প্রপোজাল

৩. মোটিভেশন লেটার

৪. রিকন্ডেশন লেটার

৫. সিভি

৬. পাসপোর্টের স্ক্যান কপি

স্কলারশিপের আওতাধীন বিশ্ববিদ্যালয় সমূহ

১. মারডোক ইউনিভার্সিটি

২. দেকিন ইউনিভার্সিটি

৩. অস্ট্রেলিয়ান ক্যাথলিক বিশ্ববিদ্যালয়

৪. চার্লস স্টার্ট ইউনিভার্সিটি

৫. সেন্ট্রাল কুইন্সল্যান্ড ইউনিভার্সিটি

৬. ক্যানবেরা ইউনিভার্সিটি

৭. এডিথ কোয়ান ইউনিভার্সিটি

৮. গ্রিফিথ ইউনিভার্সিটি

৯. জেমস কুক ইউনিভার্সিটি

১০. লা ট্রোব ইউনিভার্সিটি

১১. মোনাশ ইউনিভার্সিটি

১২. চার্লস ডারউইন ইউনিভার্সিটি

১৩. সাউদার্ন ক্রস ইউনিভার্সিটি

১৪. কার্টিন ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি

১৫. ম্যাকুয়ারি ইউনিভার্সিটি

১৬. দি ইউনিভার্সিটি অব কুইন্সল্যান্ড

১৭. কুইন্সল্যান্ড ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি

১৮. রয়েল মেলবোর্ন ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি

১৯. ইউনিভার্সিটি অব সাউদার্ন কুইন্সল্যান্ড

২০. সুইনবার্ন ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি

২১. দি অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

২২. দি ইউনিভার্সিটি অব অ্যাডিলেড

২৩. দি ফ্লিনডার্স ইউনিভার্সিটি অব সাউথ অস্ট্রেলিয়া

২৪. দি ইউনিভার্সিটি অব নিউ ইংল্যান্ড

২৫. দি ইউনিভার্সিটি অব সিডনি

২৬. দি ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া

২৭. ফেডারেশন ইউনিভার্সিটি অস্ট্রলিয়া

২৮. ইউনিভার্সিটি অব নিউক্যাসল

২৯. ইউনিভার্সিটি অব সাউথ ওয়েলস

৩০. ইউনিভার্সিটি অব সাউথ অস্ট্রেলিয়া

৩১. ইউনিভার্সিটি অব তাসমানিয়া

৩২. দি ইউনিভার্সিটি অব মেলবোর্ন

৩৩. ইউনিভার্সিটি অব ওলংগং

৩৪. ইউনিভার্সিটি অব দ্যা সানসাইন কোস্ট

৩৫. ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি, সিডনি

৩৬. ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টার্ন সিডনি

৩৭. দি ইউনিভার্সিটি অব নটর ডেম অস্ট্রেলিয়া

৩৮. ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি

৩৯. ব্যাচেলর ইনস্টিটিউট অব ইনডিজেনাদ টারটিয়ারি এডুকেশন

৪০. বন্ড ইউনিভার্সিটি

৪১. টরেনস ইউনিভার্সিটি

৪২. এমসিডি ইউনিভার্সিটি অব ডিভিনিটি

আবেদনের প্রক্রিয়া

আপনাকে আপনার পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। এক্ষেত্রে উক্ত ডিগ্রির যোগ্যতা যাচাইয়ের পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মেধা তালিকাটি আরটিপিকে প্রেরণ করে। স্কলারশিপটির জন্য আলাদাভাবে কোনো অ্যাপ্লিকেশন করার প্রয়োজন পড়ে না।

স্কলারশিপের সুবিধাসমূহ

১. সম্পূর্ণ টিউশন ফি (মাস্টার্সের জন্য ২ বছর এবং ডক্টরালের জন্য ৪ বছর)

২. লিভিং অ্যালাউন্স হিসেবে ২,৮০০ অস্ট্রেলিয়ান ডলার (১৬ লক্ষ টাকা) পাবে

৩. স্বাস্থ্য বীমা

৪. গবেষণার জন্য আনুষঙ্গিক খরচ

আবেদনের সময়সীমা

অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় অনুযায়ী আবেদনের সময়সীমায় পার্থক্য দেখা যায়। তবে আরটিপি স্কলারশিপ এর অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য সেপ্টেম্বরের মধ্যে আবেদন করতে হবে। সাধারনত দেখা যায়, ১ ডিসেম্বরের মধ্যেই আরটিপি স্কলারশিপের রেজাল্ট ঘোষণা করা হয়।



আর্কাইভ